1. nobinbogra@gmail.com : Md. Nobirul Islam (Nobin) : Md. Nobirul Islam (Nobin)
  2. bd.momin95@gmail.com : sojibmomin :
  3. bd.momin00@gmail.com : Abdullah Momin : Abdullah Momin
  4. bd.momin@gmail.com : Uttarkon2 : Uttar kon
ভুলে ভরা পাঠ্যবই, সংশোধন চেয়ে হাইকোর্টে অভিভাবকের রিট - Uttarkon
শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ১০:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
র‌্যাবের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার খবর সম্পূর্ণ মিথ্যা : যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধুকন্যার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মধ্য দিয়ে দেশে গণতন্ত্র ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পুনরুদ্ধার হয়– মজিবর রহমান মজনু আদমদীঘিতে আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় ঘোড়া মার্কার প্রার্থীর ১০ হাজার টাকা জরিমানা বগুড়ায় সেই নারীর গলায় গুলির অস্তিত্ব পেয়েছে চিকিৎসকেরা শেখ হাসিনা গণতন্ত্রকামী মানুষের নেতা : খাদ্যমন্ত্রী নন্দীগ্রামে ট্রাক বোঝাই ধান চুরি মামলার মূলহোতাসহ গ্রেফতার-৩, ট্রাক জব্দ সারিয়াকান্দিতে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা প্রচন্ড গরমে চাহিদা বেড়েছে মহাদেবপুরে তৈরি হাত পাখার মহাদেবপুরে সমাজতান্ত্রিক ক্ষেত মজুর ও কৃষক ফ্রন্টের মানববন্ধন দুবাইয়ে বাংলাদেশীদের শত শত বাড়ি হলো কিভাবে

ভুলে ভরা পাঠ্যবই, সংশোধন চেয়ে হাইকোর্টে অভিভাবকের রিট

  • সম্পাদনার সময় : শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১১৭ বার প্রদশিত হয়েছে

ঢাকা: ষষ্ঠ থেকে একাদশ শ্রেণি… চলতি শিক্ষাবর্ষের কোথায় নেই ভুল! আর এই ভুল দিয়েই শেষ হতে চলছে চলতি শিক্ষাবর্ষ। ৫শোরও বেশি ভুল রয়েছে এ বছরের এনসিটিবি অনুমোদিত বইয়ে। এরইমধ্যে সংশোধন চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেছেন এক অভিভাবক। চলতি সপ্তাহে যার শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।
দেশের শিক্ষাবর্ষ শুরু হয় জানুয়ারিতে, শেষ হয় ডিসেম্বরে। করোনায় এ বছর ক্লাস সেভাবে না হলেও বছরের শুরুতে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিয়েছিলো সরকার। তবে প্রথম থেকে একাদশ শ্রেণীর বইয়ে যে পাঁচ শতাধিক ভুল রয়েছে তা নিয়েই শেষ হচ্ছে চলতি শিক্ষাবর্ষ।
একাদশ শ্রেণির পৌরনীতি বইয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনকে লেখা হয়েছে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান। অথচ দুদক একটি আইন দ্বারা গঠিত সংবিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান।
নবম-দশম শ্রেণীর বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা বইয়ের ১৭৪ পৃষ্ঠায় ৯ নম্বর লাইনে আছে দলীয় নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। কিন্তু হবে আওয়ামী লীগের সভাপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ১৮৭ পৃষ্ঠায় শেখ মুজিবুর রহমানকে মুজিবনগর সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি বলা হয়েছে। অথচ স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রে শেখ মুজিবুর রহমানকে প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রপতি বলা হয়েছে। একই বইয়ের সংবিধানের ১১ অনুচ্ছেদের লাইনটিও ভুলভাবে তুলে ধরা হয়েছে।
বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় নবম ও দশম শ্রেণির বইয়ে ২৯ পৃষ্ঠার বঙ্গভবনকে লেখা হয়েছে প্রেসিডেন্ট ভবন। সেই সাথে
প্রধানমন্ত্রীর কার্যকাল ৫ বছর বলে উল্লেখ করা হয়েছে। অথচ সংবিধানের কোথাও আলাদাভাবে প্রধানমন্ত্রীর কার্যের কথা উল্লেখ নেই।
এমন অসংখ্য ভুল সংশোধন করতে অনেক অভিভাবক এনসিটিবিকে চিঠি দিলেও কর্ণপাত করেনি তারা। শেষ পর্যন্ত
হাইকোর্টের দারস্থ হয়েছেন এক অভিভাবক।
রিটকারী আইনজীবী বলছেন, তারা চান দ্রুত এই রিটের শুনানি হোক। কারন নতুন শিক্ষাবর্ষে এসব ভুল সংশোধন না হলে
আবারও শিক্ষার্থীদের হাতে ভুল বই যাবে।
চলতি সপ্তাহে হাইকোর্টে এ রিটের শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright &copy 2022 The Daily Uttar Kon. All Rights Reserved.
Powered By Konvex Technologies